খোকসায় বৃদ্ধ চাচার পুরুষাঙ্গ ছিড়ে দিল ভাতিজা

0
289

স্টাফ রিপোর্টার

কুষ্টিয়ার খোকসায় ছেলে ভাতিজার মারামারি ঠেকাতে গিয়ে ভাতিজার হামলায় পুরুষাঙ্গ হারাতে বসেছে বয়বৃদ্ধ তোফাজ্জেল শেখ (৭৫)। স্বামীকে উদ্ধার করতে গিয়ে একই ব্যক্তির কামড়ে বৃদ্ধের স্ত্রী আনোরা খাতুন (৬৫) আহত হয়েছেন।

ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে ওসমানপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কোমরভোগ গ্রামে পাওনা টাকা চাওয়া কেন্দ্র করে তোফাজ্জেলের ছেলে শরিফুলের সাথে তার চাচাত ভাই দবিরের ধস্তা-ধস্তী বাঁধে। এক পর্যায়ে বৃদ্ধ (তোফাজ্জেল) বিরোধ মিটাতে ছুটে যান। এ সময় ভাতিজা দবির বৃদ্ধের পুরুষাঙ্গ টেনে ছিড়ে দেয়। পরবিবারের লোকেরা আহত বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নিয়ে যায়। চিকিৎসার এক পর্যায়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিন (আহত বৃদ্ধ) পেশায় রাজমিস্ত্রী।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার জাহিদুল ইসলাম জানান, বৃদ্ধের পুরুষাঙ্গের গোড়ার চার পাশের ৪০ শতাংশের চামড়া ছিড়ে ঝুলছিল। প্রায় ২০টির বেশী সেলায় লেগেছে। বৃদ্ধের উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধিন গুরুতর আহত বৃদ্ধ তোফাজ্জেল জানান, তার ছেলে দবিরের কাছে ৭ হাজার টাকা পাবে। পাওনা টাকা চাওয়া কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে ধস্তা-ধস্তি বাঁধ। এ সময় তিনি তাদের বিরোধ মেটাতে গেলে ভাতিজা দবির তার পুরুষাঙ্গ টেনে ছেড়ে ফেলে। তার সমস্ত শরীর রক্তে ভেসে যায়। চিৎকারে শুনে স্ত্রী আনোরা তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করলে তাকেও কামড়ে দেয় ভাতিজা দবির। তিনি আল্লার কাছে বিচার দিয়েছেন।

দবিরের সাথে কথা বলা হয়। তিনি উল্টো অভিযোগ করে বলেন, আগের দিন সোমবার চাচাত ভাই শরিফুকে ছোট রড বিক্রিতে বাধা দেওয়া হয়। এ ঘটনার সূত্র ধরে মঙ্গলবার সাকালে তার স্ত্রীর উপর চাচা ও চাচাতো ভাই শরিফুল হামলা চালায়। তিনি স্ত্রী কে রক্ষায় এগিয়ে গেলে তার উপর হামলা করা হয়। এ সময় নিজেকে রক্ষায় তিনি চেষ্টা করেছে। বৃদ্ধ চাচা আহত হয়েছেন এ ঘটনায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, এমন খবর তাকে কেউ বলেনি।