খোকসায় চোরে নিয়ে গেলো বৃদ্ধার খাওয়ার রুটিসহ সব

0
307

স্টাফ রিপোর্টার

ঘুর্ণি ঝড় মোকার দুর্যোগের সময় নিজের খাওয়ার জন্য তৈরী করে রাখা বৃদ্ধার ১৩ খানা রুটি ও নগদ টাকাসহ সর্বশো চুরি করে নিয়ে গেছে দুবৃত্ত¡রা।

শনিবার দিন গত রাতে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার ১ নং খোকসা ইউনিয়নের হেলালপুর গ্রামে এই চুরির ঘটনাটি ঘটেছে। ভুক্তভোগী ওই নারীর নাম জাহানারা খাতুন ওরফে ফাতাসী মেম্বর। স্বামী পরিত্যক্তা এ নারী চোরের উপদ্রবে গ্রাম ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

জানা গেছে, ঘুর্ণি ঝড় মোকা’র সময় নিজে খাওয়ার জন্য ১৩ খানা গমের আটার রুটি বানিয়ে রেখে শনিবার বিকালে মায়ের বাড়ি কমলাপুরে যান ষাটউদ্ধ স্বামী পরিতক্তা জানাহানারা খাতুন ওরফে ফাতাসী মেম্বর। রাতে আর নিজের বাড়িতে ফেরেন নি। পরদিন রবিবার সকালে বাড়ি ফিরে তারা একমাত্র খুপড়ি ঘরের দরজার শেকল কাটা দেখতে পান। ঘরে ভিতরে ঢুকেই দেখেন তার সর্বনাশ হয়ে গেছে। তার ঘরের ভিতরে তছনছ করা হয়েছে। তার নিজের খাওয়ার জন্য তৈরী করে রাখা রুটি আর ডাউল চুরি হয়ে গেছে। জমির কাগজের মধ্যে জমিয়ে রাখা ২০ হাজার টাকাসহ মালামাল নিয়ে গেছে দুবৃত্ত¡রা।

জাহানারা খাতুন ওরফে ফাতাসী মেম্বর জানান, মাস দুয়েক আগে রমজানের সময় চোরেরা তার ঘর থেকে ওএমএসএর দোকান থেকে কেনা ২০ কেজি চাউল চুরি করে নিয়ে যায়। এবারেও তার খাবারের জন্য তৈরী করে রাখা রুটি ও রান্না ডাউলসহ জমানো শেষ সম্বল ২০ হাজার টাকা নিয়ে তাকে পথে বসিয়েছে।

বিলাপ করতে করতে জাহানারা জানান, তিনি প্রথম বার গ্রামের মানুষের কাছে বিচার দিয়েছিলেন। সেখানে বিচার মেলেনি। এবারে তার ঘর থেকে রান্না করার খড়ি (লাকড়ি) পর্যন্ত চুরি করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনার বিচারের ভার উপর ওয়ালার কাছে দিয়েছেন। চোরের উপদ্রব থেকে বাঁচতে তিনি গ্রাম ছাড়ার সিদ্ধান্তও নিয়েছেন।

থানা ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তফা হাবিবুল্লাহ বলেন, তিনি পুলিশ পাঠিয়ে ঘটনাটির খোঁজ খবর নিচ্ছেন। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ডাকাতির ঘটনায় মধ্যে শুধুমাত্র শিমুলিয়ার ডাকাতির বিষয়ে মামলা দায়ের হয়েছে। এ মামলায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি উপজেলা সদরের এক প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি, চান্দট ও শিমুলিয়ায় পৃথক ডাকাতির ঘটনাসহ বিভিন্ন গ্রাম থেকে একাধিক কৃষকের গরু চুরিসহ অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে।