খোকসায় চোর সন্দেহে আটক ব্যক্তির উপর নির্যাতন

0
65

স্টাফ রিপোর্টার

কুষ্টিয়ার খোকসা বাজারের ফল দোকানের ক্যাশ থেকে টাকা চুরির ঘটনায সন্দেহ জনক ভাবে ধরাপরা ব্যক্তিকে লোহার পাইপের সাথে বেঁধে পেটানো হয়।

জনতার হাতে ধরাপরা ও নির্যাতনের শিকার ব্যক্তির নাম আলাল। সে নিজেকে জেলার মিরপুর থানার পোড়াদহ গ্রামের বাসিন্দার বলে জানান।

জানা গেছে, শনিবার দিনগত রাত পৌনে ১০টার দিকে উপজেলা সদরের পৌর বাজারের প্রধান সড়কের ফুটপাতের ফল ব্যবসায়ী রাব্বি পাশের দোকানে আদায়তে যায়। এই সুযোগে চোরচক্র তার দোকানের ক্যাশ থেকে টাকা চুরি করে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় স্থানীয়রা আলাল নামের একজনকে ধরে ফেলে। এরপরে ধরাপরা আলালকে বাজারের একটি দোকানের সামনের লোহার পাইপের সাথে বেঁধে বেধরক মারপিট করা হয়। এ দৃশ্য দেখার জন্য উৎসুক জনতা ভীড় করে। চোরকে না মেরে পুলিশে সপর্দ করার জন্য তাদের অনেক পথচারীকে অনুরোধ করতে দেখা যায়। পরে রাত ১০ টা ২০ মিনিটের দিকে থানা পুলিশ নির্যাতনের শিকার আলালকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

নির্যাতনের ফাঁকে আলাল দাবি করেন সে চোর না। চুরি করেন নি। সে এর বেশী কথা বলতে পারছিল না।

প্রত্যক্ষদর্শী ফুটপাতের অপর এক ব্যবসায়ী জানান, জনতার হাতে ধরাপরা ব্যক্তিসহ তিনজন ৩ জন লোক ফলের দোকানের ক্যাশ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়। চুরি যাওয়া টাকার কিছু ওই ধরাপরা ব্যক্তির কাছে পাওয়া গেছে। তবে তিনিও চোরকে না মেরে পুলিশে দেওয়ার পক্ষেমত দেন।

ফল ব্যবসায়ী রাব্বি দাবি জানান, তিনি দোকান ছেড়ে আদায়তে গেলে চোররা তার দোকানের ক্যাশ থেকে সারা দিনের বিক্রিও টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় আলালকে জনতা ধরে ফেলে। ধরাপরা ব্যক্তির কাছ থেকে চুরি যাওয়া টাকা পাওয়া গেছে। তবে পরিমান জানাননি ।