ঘুসের হার নির্ধারণ করা এসিল্যান্ড সাময়িক বরখাস্ত

0
155

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

পিরোজপুরের নাজিরপুরের জমির নামজারির েেত্র ঘুসের হার নির্ধারন করে দেওয়া এসিল্যান্ড (সহকারী কমিশনার-ভূমি) কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বুধবার জনশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

অডিও ভাইরাল হওয়ার পর সহকারী সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তা মাসুদুর রহমানকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছিল।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, মাসুদুর রহমানের বিরুদ্ধে তার সহকর্মীদের নামজারি মামলায় অবৈধ অর্থ লেনদেন সংক্রান্ত নির্দেশনা প্রদানের অভিযোগ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়।

পিরোজপুর জেলা প্রশাসকের তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করে। তদন্তে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার ১৯ সেপ্টেম্বর মাসুদুর রহমানের এ আচরণকে ‘সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮’ এর ৩(খ) বিধি মোতাবেক অসদাচরণ হিসেবে গণ্য করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তাব করেন।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, মাসুদুর রহমানকে তার দায়িত্ব থেকে বিরত রাখা আবশ্যক। তাই ‘সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮’ এর ধারা ৩৯(১) অনুযায়ী সরকারি চাকরি থেকে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো। তিনি সাময়িক বরখাস্ত থাকাকালীন বিধি অনুযায়ী খোরপোষ ভাতা পাবেন।

এর আগে জুলাইয়ে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাদের নিয়ে একটি সভার কথোপকথনের অডিও সম্প্রতি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে জমির নামজারি করার জন্য ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তারা ছয় হাজার টাকা ঘুস নেবেন বলে নির্ধারণ করে দেন এসিল্যান্ড মাসুদুর রহমান। পরে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশও দেয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জীব দাশ।