স্থায়ী জামিন পেলেন পরীমনি

22

দ্রোহ বিনোদন ডেস্ক

মাদক মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমনিকে স্থায়ী জামিন দিয়েছে ঢাকার মহানগর হাকিম আদালত।

এ মামলায় পুলিশ প্রতিবেদন হওয়া পর্যন্ত জামিনে ছিলেন পরীমনি। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ অভিযোগপত্র দেয়ার পর রবিবার ছিল মামলার ধার্য তারিখ।

পরীমনি এদিন আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে স্থায়ী জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়।

শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার অভিযোগপত্র গ্রহণ করে পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন। পাশাপাশি বিচারের পরবর্তী ধাপের জন্য মামলার নথিপত্র মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন।

এ মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত তিন আসামির মধ্যে পরীমনির পাশাপাশি কবীর হোসেনকেও জামিন দিয়েছে আদালত। আর পরীমনির সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দিপু এ মামলায় স্থায়ী জামিনে আছেন।

পরীমনি পে জামিন শুনানি করেন আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী। রাষ্ট্রপে ঢাকা মহানগরের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু জামিনের বিরোধিতা করেন।

গত ৪ আগস্ট রাতে ঢাকার বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তারের পর পরদিন তার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদক আইনে এ মামলা করা হয়। র‌্যাবের জব্দ তালিকায় পরীমনির বাসা থেকে ‘মদ এবং আইস ও এলএসডির মতো মাদকদ্রব্য’ উদ্ধারের কথা বলা হয়।

পরীমনিকে গ্রেপ্তারের পর র‌্যাব মুখপাত্র খন্দকার আল মঈন বলেছিলেন, চিত্রনায়িকা পরীমনির ফ্যাটে ‘মিনি বার’ ছিল। তিনি নিয়মিত মদ পান করতেন এবং ‘ঘরোয়া পার্টি’ আয়োজন করতেন।

পরীমনির মদ ব্যবহারের জন্য একটি লাইসেন্স পাওয়া গিয়েছিল জানালেও তিনি বলেছিলেন, “তার মেয়াদ শেষ হয়েছে অনেক আগে।”

পরীমনিকে গ্রেপ্তারের পর বারবার রিমান্ডে নেওয়া নিয়ে তুমুল আলোচনার মধ্যে হাইকোর্ট তা নিয়ে প্রশ্ন তোলার পর গত ৩১ অগাস্ট তার জামিনের আদেশ হয় বিচারিক আদালত থেকে। পরদিন তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে ছাড়া পান।

তদন্ত শেষে গত ৪ অক্টোবর পরীমনিসহ তিনজনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি।

চিত্রনায়িকা পরীমনির সঙ্গে এক ডিবি কর্মকর্তার ‘১৮ ঘণ্টা সময় কাটানোর’ খবর গণমাধ্যমে আসার পর এ মামলার তদন্তভার সিআইডির কাছে গিয়েছিল।

নড়াইলের মেয়ে শামসুন্নাহার স্মৃতির ২০১৫ সালে ঢাকার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে পরীমনি নামে। এরপর দুই ডজন চলচ্চিত্রে নায়িকার চরিত্র রূপায়ন করেছেন তিনি।

গ্রেপ্তার হওয়ার কয়েক মাস আগে ঢাকা বোট কাবে যৌন নিপীড়িত হওয়ার অভিযোগ তুলে শোরগোল তুলেছিলেন পরীমনি। তার করা মামলায় ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ।

Print Friendly, PDF & Email