ভেড়ামারায় নিহত মাছ চাষীর লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

14
নিহতের স্বজনের আহাজারী

কুষ্টিয়া প্রতিরিধি

কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় প্রতিপরে হামলায় নিহত মাছ চাষী দানেজ আলী (৫৫) হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মরদেহ নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

রবিবার ভেড়ামারা বাজারে মৃত মাছ চাষীর লাশ সামনে রেখে হাজার-হাজার মানুষ বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে অংশ নেয়। নিহত দানেজ আলী ভেড়ামারা উপজেলার ধরমপুর ইউনিয়নের বিলশুকা গ্রামের মৃত হামিজ উদ্দিন প্রামাণিকের ছেলে। তিনি একজন মাছ চাষি ছিলেন।

ভেড়ামারায় লাশ নিয়ে মানববন্ধন

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব শত্রুকার জেরে স্থানীয়দের সাথে দানেজ আলীর বিরোধ চলে আসছিল। শুক্রবার বিকালের দিকে দানেজ আলী বিলশুকা মাঠে নিজের গম ক্ষেতে গেলে প্রতিপরে লোকেরা তাকে (দানেজ) রামদা, হাসুয়া, লাঠিসোঁটা ও হাতুড়ি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে স্বপন আলী বাদী হয়ে ভেড়ামারা থানায় ১০ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তবে পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

নিহতের ছেলে জানান, দুই মাস আগে প্রতিপরে লোকজন তাদের পুকুরে মাছ লুটপাট করতে এসেছিল। বাঁধা দেওয়ায় সে সময়ও তারা হামলা চালিয়ে ছিল। এবার মাঠে তার বাবাকে একা পেয়ে হত্যা করল। তিনি হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান বলেন, প্রতিপরে হামলায় দানেজ আলীর মৃত্যু হয়। ধারণা করা হচ্ছে বিরোধের জেরে এই হত্যাকান্ডে ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email