কুষ্টিয়ায় প্রধান শিক্ষকের উপর হামলাকারী কাউন্সিলর কারাগারে

0
18
কাউন্সিলর সোহেল রানা - ছবি সংগৃহীত

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের উপর হামলাকারী সদর পৌরসভার ২১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সোহেল রানা আশাসহ ৩ জনের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার দুপুরে কুষ্টিয়ার বিজ্ঞচীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত হাজির হয়ে আসামিরা জামিনের প্রার্থনা জানালে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জামিন না মঞ্জুর হওয়া আসামিরা হচ্ছেন কুষ্টিয়া শহরতলীর মোল্লাতেঘড়িয়া এলাকার আফজাল হোসেনের ছেলে কুষ্টিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর সোহেল রানা আশা (৪৫), একই এলাকার মৃত নিয়ামত আলীর ছেলে ফারুক (৪৫) ও পলান মন্ডলের ছেলে আনছের আলী (৩৫)।

শহড়তলীর লাহিনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নজরুল ইসলামের উপর হামলার ঘটনায় দায়ের কৃত মামলায় কাউন্সিলর সোহেল রানা আশাসহ মামলার চার আসামি হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের অন্তবর্তীকালীন জামিন লাভ করেছিলেন। পরে জামিনের মেয়াদ শেষ হলে নি¤œ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার অপর একজন আসামী আগে থেকেই জামিনে রয়েছেন বলে জানা গেছে।

আরো পড়ুন – কুমারখালীর অধ্যাপকের কব্জি কর্তন মামলায় আটক ৭

কুষ্টিয়া জজ কোর্টের সরকারী কৌসুলী (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী জামিন না মঞ্জুর হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আদালত সূত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়া শহরতলীর লাহিনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ ও বিদ্যালয়ের আঙ্গিনা দখল করে কাউন্সিলর আশা ঠিকাদারী কাজের মালামাল রেখে বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিনষ্ট করে আসছিলেন। এ ছাড়াও বিদ্যালয় চলাকালীন সময় মেশিনের বিকট শব্দে ইট ভাঙ্গা ও বিদ্যালয়ের বিদ্যুৎ অবৈধভাবে ব্যবহার করে আসছিলেন। চলতি বছরের গত ৩১ মার্চ সকাল ১০ টার সময় লাহিনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নজরুল ইসলাম এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালে কাউন্সিলর আশাসহ আসামিরা প্রধান শিকের উপর হামলা চালিয়ে আহত করে। পরদিন ১ এপ্রিল প্রধান শিক নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে কাউন্সিলর আশাসহ ৪ জনের নামে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং -০১।

এ ঘটনা নিয়ে বিদ্যালয়ের শিার্থীরা ুদ্ধ হয়ে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী মহা সড়ক অবরোধ করে বিচারের দাবিতে দুই দফা মানববন্ধন করেন।

এ বিষয়ে মামলার বাদী প্রধান শিক নজরুল ইসলাম জানান, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। আমার উপর হামলাকারী আসামিদের সঠিক বিচারের দাবি জানাচ্ছি ।