দৌলতপুরে বিড়ি শ্রমিকদের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া

0
21

রাবার বুলেট ছুড়লো পুলিশ, তিন শ্রমিক আটক

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টারীর বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে আগুন জ¦ালিয়ে কুষ্টিয়া-প্রাগপুর সড়ক অবরোধ করে। এ সময় পুলিশের সাথে শ্রমিকদের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট নিপে করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিন শ্রমিককে আটক করা হয়েছে।

বুধবার বেলা ১২ টার দিকে উপজেলার হোসেনাবাদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শ্রমিক নেতা আবুল কালাম জানান, আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরীর ম্যানেজার রাসুল উদ্দিন পলাশ দীর্ঘদিন ধরে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অসম্পূর্ন ব্যান্ডরোল ব্যবহার করতে শ্রমিকদের বাধ্য করে আসছিলেন। ইতোপূর্বে যে সকল শ্রমিক ম্যানেজারের কথামতো অর্ধেক সাইজ ব্যান্ডরোল ব্যবহারে রাজি হননি তাদেরই কাজ থেকে ছাটাই করা হয়েছে। এছাড়া যারা কাজ করছিলেন তাদেরকেও বিভিন্ন অজুহাতে টর্চার সেলে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন চালানো হয়।

আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরীতে ব্যান্ডরোল জালিয়াতির অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে কাষ্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগ কুষ্টিয়ার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা সার্কেল-২ এর বি এম সাজ্জাদুল হক বলেন, আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরীতে ব্যান্ডরোল জালিয়াতির সংবাদ আমরা পেয়েছি। ঘটনাস্থল থেকে নমুন সংগ্রহ করা হয়েছে। সেগুলি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যদি অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায় তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো পড়ুন –কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় তিন আসামির কারাদন্ড

দৌলতপুর থানার পুলিশ অফিসার ইনচার্জ জাবীদ হাসান জানান, শ্রমিক অসন্তোষের প্রতিবাদে শ্রমিকরা রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে আগুন জালিয়ে কুষ্টিয়া-প্রাগপুর সড়ক অবরোধ করে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সেখানে বিােভরত শ্রমিকরা পুলিশের উপর ইট পাটকেল নিপে করে। এতে এক পুলিশ সদস্য ইটের আঘাতে আহত হন। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতয়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ তিন জনকে আটক করেছে।

আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরীর ম্যানেজার রাসুল উদ্দিন পলাশের মুঠোফোন নাম্বারে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও প্রতিবারই তিনি কল কেটে দেন। এমনকি মুঠোফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েও কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে দৌলতপুরের হোসেনাবাদে আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টারীতে শ্রমিকদের সাথে কর্তৃপক্ষের দ্ব›দ্ব চলে আসছে। এই দ্ব›েদ্বর জের ধরে প্রায় প্রতি বছরই এখানে শ্রমিক মালিক কর্তৃপক্ষের সাথে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে হতাহতের মত ঘটনা ঘটে থাকে।