কুষ্টিয়ায় আন্ত:নগর ট্রেনে পাখর ছুঁড়ে যুবক কারাগারে

0
18
প্রতিকী ছবি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া কোর্ট স্টেশন থেকে ছেড়ে যাওয়ার মুহূর্তে চলন্ত আন্ত:নগর ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের ঘটনায় আশারাফুল ইসলাম নামের এক ট্রেনে যাত্রী আহত হয়েছেন।

শুক্রবারা বেলা ১১ টার দিকে মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনে এ পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পাথর ছোড়ার পরপরই স্থানীয়দের সহযোগিতায় রেলওয়ে পুলিশ সুমন আলী (২৪) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। তাকে পোড়াদহ জিআরপি থানায় নেওয়া হয়েছে। আটককৃত যুবক সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় ওই যুবকের বিরুদ্ধে পোড়াদহ জিআরপি থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশের হাতে আটক হওয়ার পর সুমন নিজেকে মানসিক বিকারগ্রস্থ হিসেবে দাবী করলেও পুলিশ বলছে তার আচার-আচরণে এ রকম কোন লণ ধরা পড়েনি।

পোড়াদহ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনজের আলী এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সকালে রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা ফরিদপুরগামী মধুমতি এক্সপ্রেস নামের আন্ত:নগর ট্রেনটি বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়া শহরে কোর্টস্টেশনে এসে থামে। নিয়ম পাফিক ট্রেনটি পরের স্টেশনের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। কুষ্টিয়া কোর্র্ট স্টেশন ছেড়ে বের হওয়ার মুহূর্তে হঠাৎ ডান পাশ থেকে পাথর নিপে করতে শুরু করে এক যুবক। এতে ট্রেনের একটি জানালার কাঁচ ভেঙে এক যাত্রী আহত হন। আহত ওই যাত্রীর নাম আশরাফুল ইসলাম বলে জানা গেছে। আহত ওই যাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ঢিল ছোঁড়ার কারণে ট্রেনের জানালার আরও কয়েকটি কাঁচ ভেঙে গেছে। পরে মিলপাড়া রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি ও ট্রেনে থাকা পুলিশ স্থানীয়দের সহায়তা নিয়ে পাথর নিপেকারী ওই যুবক সুমনকে আটক করে।

আরো পড়ুন – খোকসায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটকের মৃত্যু

তিনি জানান প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, অভিযুক্ত যুবক সুমন একজন ভবঘুরে। যেহেতু সে একটি গুরুতর অন্যায় করেছে এবং ওই ঘটনায় একজন আহত হয়েছেন সেই সাথে তার নিপে করা পাথরে ট্রেনের ক্ষয়-তি হয়েছে সে কারণে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। পরবর্তীতে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।