দৌলতপুরে মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ

0
18
প্রতিকী ছবি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার সকালে উপজেলার হোসেনাবাদ লালদহ মাঠের পান েেত শান্ত ইসলাম (১১) নামে ওই শিশুকে বলাৎকার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে হোসেনাবাদ মল্লিকপাড়া এলাকার কলমের ছেলে জয় (২২) এর বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় হয়েছে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের হোসেনাবাদ কান্দিরপাড়া গ্রামের সিরাজ মন্ডলের ছেলে হোসেনাবাদ ফজলুল উলুম বহুমুখি মাদ্রাসার ছাত্র শান্ত ইসলাম শুক্রবার সকালে হোসেনাবাদ লালদহ মাঠে গরুর জন্য ঘাস কাটতে যায়। এ সময় হোসেনাবাদ মল্লিকপাড়া এলাকার কলমের ছেলে জয় ঘাস নেওয়ার কথা বলে শান্ত ইসলামকে পান বরজের ভেতরে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তার পরনের ট্রাউজার খুলে জোরপূর্বক বলাৎকার করে পানবরজের ভেতর শান্তকে আটকে রাখে। শুক্রবারের জুম্মার নামাজের সময় হওয়ায় শান্ত বাড়ি ফিরে না আসায় তার মা ছেলেকে খোঁজ করতে যায়। এ সময় শান্তকে পান বরজ থেকে উদ্ধার করর পর সে এ ঘটনা জানায়।

আরো পড়ুন – কুমারখালীতে মাদকের আস্তানায় র‌্যাবের হানা

শান্তর মাতা পরিয়ারা খাতুন বলেন, একজন বর্বরের দ্বারাই এ ধরনের কান্ড ঘটানো সম্ভব। এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই।

দৌলতপুর থানার ওসি এসএম জাবীদ হাসান জানান, শিশু বলাৎকারের ঘটনায় মামলা হয়েছে। বলাৎকারের শিকার শিশুকে ডাক্তারী পরীার জন্য শনিবার সকালে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে অভিযুক্ত জয় পলাতক থাকায় তাকে আটক করা যায়নি।