খোকসায় ভেজাল গুর তৈরীর দায়ে ব্যবসায়ীকে জরিমানা 

15

ষ্টাফ রিপোর্টার

কুষ্টিয়ার খোকসায় ভেজাল আখেল গুড় তৈরীর কারখানায় অভিযান চালিয়ে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা ও ৫ লক্ষাধীক টাকার ভেজাল গুড় নষ্ট করে দিয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তরের টিম।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টাকা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত উপজেলা সদরের পৌর এলাকার প্রধান বাজারে এসব কারখানায় অভিযান চালায় কুষ্টিয়ার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তর টিমটি। এ দলের নেতৃত্বদেন ভোক্তা অধিদপ্তরের উপ পরিচালক সুচন্দন বিশ্বাস।

সকালে খোকসা বাজারে প্রধান সড়কে দিলীপ বিশ্বাস ষষ্টির ভেজাল আখের গুড় তৈরীর কারখানায় অভিযান শুরু হয়। পরে কালী রোডের নিত্যগোপাল বিশ্বাসের ভেজাল গুড় তৈরীর কারখানায় অভিযান চালায় এ টিম।

মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর নি¤œমানে চিটা গুড়, রাসায়নিক এর সাথে চিনি জ্বালিয়ে ভেজাল আখের গুড় তৈরীর দায়ে নিত গোপাল বিশ্বাসকে ১লাখ ৫০ হাজার টাকা ও দিলীপ বিশ্বাসকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় অভিযানিক দলটি কারখানা দুটির তৈরী করে রাখা প্রায় ৫ টন ভেজাল আখের গুড়রের টিনে কেরসিন তেল ঢেলে খাবার অনুপযোগী করেদেন।

সহকারী পরিচালক সুচন্দন বিশ্বাস জানান, চিনি সাথে চিটাগুড়, রাসয়নিক ও মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর রং মিশিয়ে গুড় তৈরীর সত্যতা মেলায় খাদ্যদ্রব্য ভেজাল নিয়ন্ত্রন আইনে দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া ভেজাল গুড়ে কেরোসিন তেল দিয়ে নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান, এসব প্রতিষ্ঠান বন্ধের জন্য উদ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হবে।

আরো পড়ুন  –  শৈলকুপায় দু’পরে সংঘর্ষে ১৫ জন আহত

উল্লেখ্য, খোকসার এইসব ভেজাল আখের গুড় তৈরী প্রতিষ্ঠান গুলো বিরুদ্ধে কমপক্ষে ২০ বার মোবাইল কোট অভিযান করেছে। প্রত্যেক বারই মোটা দাগে জরিমানা করা হয়েছে। এ ছাড়া খাদ্যদ্রবে ভেজাল দেওয়ায় ১৯৭২ এর বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাসহ ৫টি মামলা চলমান রয়েছে। কিন্তু প্রশাসনের নাকের ডগায় এসব প্রতিষ্ঠান যুগ যুগ ধরে অবৈধ ভারে ভেজাল আখের ও খেজুড়ের গুড় তৈরী করেছে।

Print Friendly, PDF & Email