কুমারখালীর পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবি, এক শ্রমিক নিখোঁজ

6

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বালুবাহী দুই নৌকার সংঘর্ষে ডুব যাওয়া নৌকার এক শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন।

সোমবার বিকালে উপজেলার শিলাইদহ ইউনিয়নের কোমরকান্দি এলাকায় পদ্মানদীতে এদুর্ঘটনা ঘটে। এতে উবাই সরদার (৪০) নামের একজন শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন। খবর পেয়ে সন্ধ্যায় কুমারখালী ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছায়।

নিখোঁজ শ্রমিক জেলার ভেড়ামারা উপজেলার বাবাহির চর ইউনিয়নের দশ মাইল এলাকার জালাল সরদার ছেলে। এ ঘটনায় নদী সাঁতরে প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন আরো ১৮ জন শ্রমিক।

নৌকায় থাকায় শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, পাবনা সুজানগরের তারাপুর চর থেকে দুইটি বালুবাহী নৌকা পদ্মা নদী দিয়ে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা বারোমাইল ঘাটে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে বিকেল ৪ টার দিকে কুমারখালীর শিলাইদহের কোমরকান্দি এলাকায় পৌছালে আগের নৌকা ¯্রােতে উল্টে যায়। আর উল্টে যাওয়া নৌকার সাথে অপর নৌকাটি আছড়ে পরে। এক পর্যাযে দুটি নৌকাই পদ্মায় ডুবে যায়।

বেঁচে ফেরা শ্রমিকদের দাবি তাদের দাবি, নৌকা দুটিতে মাঝিসহ ১৮ জন শ্রমিক পানিতে পড়ে যায় এবং দুইটি নৌকা ও বালু পানিতে ভেসে যায়। পরে নদী সাঁতরে মাঝিসহ ১৭ জন শ্রমিক প্রাণে বেঁচে নদীতীরে ফিরে আসেন। কিন্তু উবাই সরদার নামের একজন শ্রমিক এখনও নদীতে নিখোঁজ রয়েছেন।

শ্রমিক আলাউদ্দিন বলেন, তাঁরাপুর থেকে বালু নিয়ে বারোমাইল যাচ্ছিলাম। নৌকায় আমরা ১৮ জন ছিলাম। যাওয়ার পথে কোমরকান্দি এলাকায় আমাদের নৌকা ¯্রােতে উল্টে যায়। আর অপর নৌকা এসে ধাক্কা দেয়। আমরা সবাই সাঁতরে প্রাণে বেঁচে কিনারে ফিরিছি। কিন্তু উবাই এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের পরিদর্শক বখতিয়ার উদ্দিন বলেন, সন্ধ্যায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছেছি। দুই বালুবাহী নৌকার সংঘর্ষে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। উবাই নামের একজন শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন বলে অন্যান্য শ্রমিকদের দাবি। নিখোঁজের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিখোঁজের সত্যতা পেলে উদ্বার অভিযান চালানো হবে।

আরো পড়ুন – খোকসায় ছাত্রীর যৌন হয়রানারি অভিযোগের তদন্ত শুরু

কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিতান কুমার মন্ডল বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়েছি। ফায়ার সার্ভিস কাজ করছে।

Print Friendly, PDF & Email