কুমারখালীতে বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ উদ্ধার

16

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সামছুল আলম (৭০) নামের একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রবিবার বিকালে উপজেলার সদকী ইউনিয়নের দড়ি বাটিকামারা গ্রামের দ্বিতীয় স্ত্রী রেশমা খাতুন ওরফে নুপুরের (২৪) বাড়ি থেকে পুলিশ ওই মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করে।

মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের নিয়ামত বাড়িয়া গ্রামের মৃত গোলাম সরোয়ারের ছেলে।

তবে বীর মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে সারবিনা আলম ও অন্যান্য স্বজনরা অভিযোগ করে বলেন, অর্থের লোভে মোটা অংকের কাবিনে ফাঁদে ফেলে সামছুল আলমকে জোর পূর্বক বিয়ে করেছিলেন রেশমা। বিয়ের পর থেকেই টাকার জন্য নিয়মিত তাকে মারিপট করতেন রেশমা।

তার দাবি শনিবার রাতে তাকে মারপিট করে হত্যা করা হয়েছে। শরীরে একাধিক স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। এ হত্যার উপযুক্ত বিচার দাবি করেন।

নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রী রেশমা খাতুন বলেন, তিনি (স্বামী) প্যারালাইসিস রোগী ছিলেন। গত শনিবার রাত ৩ টার দিকে নিজ কে চেয়ার থেকে মেঝেতে পড়ে আহত হন। পরে রবিবার সকাল ৯ টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

আরো পড়ুন – সরকার অদল বদল নিয়ে মাতামাতি করার সময় নয় – হাসানুল হক ইনু

কুমারখালী থানার ওসি মোহসীন হোসাইন বলেন, বিকাল ৫ টার দিকে খবর পেয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। শরীরের কয়েকটি স্থানে সন্দেহজনক ত রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email