খোকসার ১জন সহ কুষ্টিয়ায় সর্বোচ্চ ৩৪ জনের করোনা শনাক্ত

0
42
Kushtia-Dro-18-p-15-compressed

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

খোকসার ১জন সহ কুষ্টিয়া জেলায় একদিনে সর্বোচ্চ ৩৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলার সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্তের রেকর্ড এটি।

বৃহস্পতিবার রাতে কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ এ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাব থেকে জেলার ১৪৪টি নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেছে যার মধ্যে ৩৪টি পজেটিভ। এ অব্দি কুষ্টিয়া জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ালো ৩০৭ জন।

খোকসায় করোনা আক্রান্ত ফয়সাল (২৫)  শোমসপুরের ভাড়া বাড়িতে বাস করেন। তার পিতার নাম ডাঃ আশরাফুল ইসলাম।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ২৬ জন, কুমারখালী উপজেলায় ৩ জন, দৌলতপুর উপজেলায় ২ জন  রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ছয় জন ব্যাংক কর্মকর্তা, দুজন পুলিশ সদস্য, একজন কুমারখালী পৌরসভার কাউন্সিলর ও এক জন নার্স রয়েছেন।

কুষ্টিয়া জেলায় এখন পর্যন্ত বহিরাগত বাদে ৩০৭ জন কোভিড রোগী শনাক্ত হল। এর মধ্যে দৌলতপুর ৪২, ভেড়ামারা ৪০, মিরপুর ২৩, সদর ১৪৭,কুমারখালী ৪১ এবং খোকসা উপজেলায় ১৪ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

আক্রান্তদের মধ্যে পুরুষ রোগী ২৩৫, এবং নারী ৭২ জন। সুুস্থ হয়ে ছাড় পেয়েছেন মোট ৭৭ জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ২১৬ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১২ জন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দুজন। সর্বশেষ ১৭ জুন দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগরের ৮৫ বছর বয়স্ক একজন পুরুষ রোগী খুলনা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ১৩ জুন তার কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছিল।

আরও দেখুন

শাক কুড়ানি শিশুকাল