নৌকাডুবির ৪৮ ঘন্টা পর দুই কৃষকের লাশ উদ্ধার

11
Boat-Dro-23-p-11-compressed
প্রতিকী ছবি

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরের লালপুর উপজেলায় পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা পর মঙ্গলবার দুপুরে দুই কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। লালপুর ও রাজশাহীর ডুবুরি দল দুই দফায় চেষ্টা করেও নিখোঁজ কৃষকদের সন্ধান করতে পারেনি।

নিহত দুজন হলেন লালপুরের বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের আতব্বর আলীর ছেলে সেলিম হোসেন (২৩) ও ছইমুদ্দিন আলীর ছেলে পুকিন আলী (৩৫)।

এলাকাবাসীরা বলেন, মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে দুর্ঘটনাস্থল থেকে আনুমানিক ১০ কিলোমিটার দূরে নিখোঁজ একজনের লাশের সন্ধান পাওয়া যায়। এ পরে বেলা ২টার দিকে নিখোঁজ অপরজনের লাশের সন্ধান মেলে। উদ্ধারের পরেই লাশ নিজ নিজ বাড়িতে নিয়ে এলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। সন্ধ্যায় জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তাঁদের দাফন করা হয়।

নৌকাটির মাঝি তৌহিদুর রহমান জানান, রবিবার পদ্মার ওপারের চরে বাদাম তুলতে গিয়েছিলেন নিহত সেলিম হোসেন, পুকিন আলীসহ আরও পাঁচজন। কাজ শেষে তারা নৌকায় করে বাড়ি ফিরছিলেন। মাঝনদী অতিক্রম করার সময় পাশ দিয়ে যাওয়া অপর একটি নৌকার ঢেউয়ে তাঁদের নৌকাটি ডুবে যায়। তিনজন সাঁতরে উপরে উঠতে পারলেও বাঁকি দুজন নিখোঁজ হন। সোমবার সকাল থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত নিখোঁজের স্বজনরা স্রোত উপেক্ষা করে ব্যক্তিগতভাবে নৌকায় করে নিখোঁজ ব্যক্তিদের সন্ধান চালাতে থাকেন। অবশেষে তাঁদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম রেজা নিখোঁজ কৃষকদের লাশ উদ্ধারের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email