কুষ্টিয়ায় সাপের কামড়ে একই পরিবারের তিনজন নিহত

0
18
Kushtia-Dro-24-p-15-compressed
প্রতিকি ছবি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে স্ত্রী, কন্যার পর দুই বছরের মাথায় এবার সাপেড় কামড়ে পিতার মৃত্যু হয়েছে। আবু বক্কর সিদ্দিক (৬০) নামের ওই ব্যক্তি পেশায় একজন কৃষক।

.মঙ্গলবার রাত ২ টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কৃষক বক্কর সিদ্দিক মারা গিয়েছেন। সে উপজেলার যদুবয়বা ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় এক বছর আগে নিহতের কন্যা ময়না (১১) ও দুই বছর আগে তার স্ত্রী নুরজাহানের একই ঘরে সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়েছিল।

বুধবার সকালে সরেজমিন গেলে প্রতিবেশীরা বলেন, প্রতিদিনের মতই মঙ্গলবার রাতে নিহত আবু বক্কর ঘুমিয়ে পড়লে রাত ১১ টার দিকে তার গলায় সাপ কামড় দেয়। সে সময় তিনি নিজেই সাপটিকে ধরে মাটিতে আছাড় মেরে হাতপাখা দিয়ে আঘাত করলে সাপটি দুর্বল হয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা এসে সাপ ও নিহত বক্করকে স্থানীয় মন্টু সাপুড়িয়ার বাড়িতে নিয়ে যায়। সাপুড়িয়া আবু বক্করকে পরীক্ষা করে বলেন তার আর কিছু করার নেই। পরে তাকে মোটরসাইকেল যোগে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন রাতেই তার মৃত্যু হয়। একই ঘরে প্রায় এক বছর আগে নিহত ব্যক্তির কন্যা ময়না ও দুইবছর আগে তার স্ত্রী নুরজাহানেরও সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়।

নিহতের ভাই ইউপি সদস্য মতিয়ার রহমান বলেন, রাতে শুয়ে থাকা অবস্থায় সাপে কামড় দিলে সাপ ও নিহত আবু বক্কর কে প্রথমে সাপুড়িয়ার বাড়িতে এবং পরে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে তিনি নিশ্চিত করে ।

আরও পড়ুন

কুষ্টিয়ায় বিয়ে সংক্রান্ত পারিবারিক বিরোধে কৃষক খুন