বুড়িগঙ্গাতে লঞ্চডুবি, ১৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধার

0
19
সংগৃহিত ছবি

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

ঢাকার বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় এ অব্দি নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ১৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস, নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ডের সদস্যরা।

সোমবার সকাল ৯টা ৩৩ মিনিটের দিকে ৭০ জন যাত্রী নিয়ে এম ভি গ্রিন ভাট নামের একটি দেড়তলা টেডি লঞ্চ, ঘাটে ভেড়ার সময় আরেকটি নৌযানের ধাক্কায় ডুবে যায় বলে সত্যতা নিশ্চিত করেছে ফায়ার সার্ভিস কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বরত কর্মকর্তা।

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ফরাশগঞ্জ এলাকায় সোমবার সকালে লঞ্চডুবির খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা এবং উদ্ধার কাজ শুরু করেন।

উদ্ধারকাজে দায়িত্বরত কর্মকর্তা রোজিনা আক্তার বলেন, এখন পর্যন্ত উদ্ধার অভিযানে ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। অনেকেই সাঁতার কেটে বুড়িগঙ্গা নদীর পাড়ে উঠতে সক্ষম হয়েছে। বর্তমানে উদ্ধার কাজ এখনও চলমান রয়েছে।

আরও দেখুন জেলেদের বৈচিত্রময় জীবন

সদরঘাট নৌ থানার ওসি রেজাউল করিম ভূঁইয়া বলেন, সকাল ৮টার দিকে মুন্সীগঞ্জ জেলার কাঠপট্টি এলাকা থেকে প্রায় ৭০ জন যাত্রী নিয়ে গ্রিন ভাট ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিল।

বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক একেএম আরিফ উদ্দিন বলেন, ডুবে যাওয়া গ্রিন ভাট লঞ্চটি উদ্ধার করার জন্য নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়েছে উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা ।

আরও পড়ুন  বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৫ লাখ

তিনি আরও বলেন, বেশিরভাগ যাত্রীই উপরে উঠতে সক্ষম হয়েছে। নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা কাজ অব্যাহত রেখেছে।