চলে গেলেন কবি দাউদ আল হাফিজ

0
29
Kobi-Dro-p-29-5
কবি দাউদ আল হাফিজ

শৈলকুপা প্রতিনিধি

নব্বই দশকের অন্যতম কবি দাউদ আল হাফিজ নিঃশব্দে চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

সোমবার ২৯ জুন হঠাৎ অসুস্থ হয়ে শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি হন কবি হাফিজ। অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া নেওয়ার পথে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

জানা গেছে, ঢাকার যান্ত্রিক জীবন ত্যাগ করে দীর্ঘদিন ধরেই নানা সংকটের মধ্যে দিয়ে পরিবারের সাথে বসবাস শুরু করেন কবি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নানাবিধ শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। কবি দাউদ আল হাফিজ এর এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

কবি ১৯৬৫ সালের ১৪ এপ্রিল শৈলকুপার কবিরপুর গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। পিতার নাম হুজুর আলী ও মাতার নাম কাঞ্চন নিসা। ১৯৮১ সালে শৈলকুপা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে মাধ্যমিক পাশসহ অত্র শিক্ষাবোর্ডের মেধা তালিকায় ২য় স্থান অর্জন করেন।

আরও পড়ুন করোনা কালের ক্রীড়া অঙ্গণ

১৯৮৩ সালে ঢাকা কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে কৃতিত্বের সাথে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে সুযোগ পান রাজশাহী মেডিকেলে পড়ার। কিন্তু তিনি সাহিত্যের নেশায় ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগে। ১৯৮৬ সালে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক সম্মান ডিগ্রি অর্জন করেন। সে সময় আর মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করা সম্ভব হয়নি বলে পরবর্তীকালে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সান্ধ্যকালিন কোর্স থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন।

১৯৯৩ সালে TS Elliot নামে একটি গ্রন্থ প্রকাশ করেন কবি। পরে আনাবাস নামে আর একটি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ পায় তার।