শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে ইন্টারনেট দেবার আলোচনা চলছে-শিক্ষামন্ত্রী

0
19

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ আছে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ইতোমধ্যেই দেশের অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনলাইনে শিক্ষাদান শুরু করা হয়েছে। তবে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নেবার জন্য বেশির ভাগ শিক্ষার্থীর পক্ষেই ইন্টারনেটের ব্যয় বহন করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট প্রদান বা স্বল্পমূল্যে ইন্টারনেট প্যাকেজ দেওয়া যায় কি-না সে বিষয়ে মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলোর সাথে আলোচনা চলছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি।

সোমবার আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক উপ-কমিটির আয়োজনে বর্তমান বৈশ্বিক সংকটকালে শিক্ষা বিষয়ে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এক অনলাইন সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানে তিনি এ কথা বলেন।

আরও দেখুন করোনায় থেমে গেল গো খামারিদের স্বপ্ন

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রতিটি সংকটই আমাদের জন্য নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন করে দেয়। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চাহিদা অনুযায়ী আমাদের জনসংখ্যাকে জনসম্পদে রূপান্তর করতে হলে তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। তাই আমাদের হয়তো কিছুদিনের মধ্যে ডিজিটাল শিক্ষা কার্যক্রমে যেতে হতো। করোনা আমাদের এক্ষেত্রে এগিয়ে দিয়েছে। আমরা এখন অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমসহ অফিস-আদালতে বিভিন্ন মিটিং এবং দৈনন্দিন কার্যক্রম অনলাইনে চালিয়ে যাচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, করোনা পরবর্তী সময়ও স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমের সাথে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকবে। শিক্ষার্থীদের স্বল্পমূল্যে বা বিনামূল্যে ইন্টারনেট প্যাকেজ সুবিধা দেয়া যায় কি-না তা নিয়ে মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলোর সঙ্গে আলাপ আলোচনা হচ্ছে। দ্রুত এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’