সাহেদ গ্রেপ্তারে নাটক দেখছেন রিজভী

0
12

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

এই নাটকটা কমেডি, নাকি ট্র্যাজেডির, তা আমরা জানি না। শুধু জানি নাটক রচনা করতে পারে আওয়ামী লীগের প্রশাসন। এটা নিঃসন্দেহে।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস মহামারীর মধ্যে রোগীদের চিকিৎসা নিয়ে রিজেন্ট হাসপাতালের প্রতারণার বিষয়টি প্রকাশ্য হওয়ার পর পালিয়ে যান এর চেয়ারম্যান শাহেদ।
টানা সপ্তাহ খানেক পর বুধবার ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা থেকে সাহেদকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব জানিয়েছে, তিনি বোরকা পরে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় ছিলেন।

দুপুরে ঢাকার নয়া পল্টনে দলের কার্যালয়ে করোনা চিকিৎসায় হোমিওপ্যাথি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধনের সময় বিএনপি নেতা রিজভী এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, “আপনি টিটো হায়দারকে (ছাত্রদল) খুঁজে পান, আপনি ছাত্রদলের আকরামুল হাসানকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে যান। অথচ ইয়ে কে (সাহেদ) কি খুঁজে পাননি এতদিন ধরে। মানুষকে মনে করেন বোকা!

আরও পড়ুন-রিজভীর প্রশ্ন- রিজেন্ট-জেকেজির নেপথ্যে গডফাদার কারা?

সাহেদ প্রসঙ্গে বিএনপি নেতা বলেন, তার মা আওয়ামী মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সাহেদ আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপকমিটির সদস্য। এত লুটপাট করে, বাটপারি করে, টাকা ইনকাম করে সে হয়ে গেল হাওয়া ভবনের লোক! সুধা ভবনের লোক হাওয়া খেলে পরে হাওয়া ভবনের লোক হয়ে যায়।

একাদশ নির্বাচনের আগে সাহেদের একটি টকশোর প্রসঙ্গ টেনে বিএনপি নেতা আরও বলেন, নির্বাচনের আগের টকশোর ভিডিও দেখলাম। সাহেদ বলছে, সেনাবাহিনী প্রধান থেকে শুরু করে সিপাহী সবাই এই সরকারকে চায়, পুলিশের আইজি থেকে কনস্টেবল পর্যন্ত সবাই এই সরকারকে চায়।

কী অদ্ভুত ব্যাখ্যা! সচিব থেকে চৌকিদার পর্যন্ত সবাই তো সরকারকে চায়, তাহলে এখানে অন্যরা আসবে কী করে? যেমন সাহেদ তেমনি তার সরকার, তেমনি তার কথাবার্তা।