অপূর্ব শর্মার করোনাকালের সৃজনকর্ম

0
18
Apurbo-Droho-29-7-p-13
অপূর্ব শর্মা

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

মুক্তিযুদ্ধের গবেষক অপূর্ব শর্মা একাধারে সাহিত্যিক, কবি ও সাংবাদিক। করোনার এই দুর্যোগকালে একের পর এক কবিতা ও গানে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন তিনি। সম্প্রতি তার লেখা ‘জাগো মানুষ’ শিরোনামের গানটি বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

ভারতের সংগীতশিল্পী শুভপ্রসাদ নন্দী মজুমদারের সুরে গানটি গেয়েছেন সংগীতশিল্পী গৌরী চৌধুরী। এছাড়াও অনিমেষ বিজয় চৌধুরীর সুরে তার লেখা ‘করোনার ফাঁদে পৃথিবী কাঁদে’ গানটিও বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

এছাড়া তার লেখা ‘বাংলা আমার মা’ এবং ‘দূর প্রবাসে’ শিরোনামে দুটি গান গেয়েছেন গৌরী চৌধুরী। ‘জাগো মানুষ’ গীতি কবিতাটি প্রথমে আবৃত্তি করেন বিলেতের বাচিক শিল্পী মনিরা পারভীন। সুরারোপের পর গৌরী চৌধুরীর কণ্ঠে গানটি ভিন্নমাত্রা পায়। অপূর্ব শর্মার কবিতাগুলোর মধ্যে ‘দেখা হবে মিলন মোহনায়’ কবিতাটির ভিডিও চিত্র প্রচারিত হয়েছে ‘চ্যানেল আই’তে।

আরও দেখুুন-অনলাইন ক্লাস- একাই একটি দুর্গ (১)

আরও দেখুন-লেখেন গান, বাজান পাতার বাঁশি

অপূর্ব শর্মার লেখা প্রায় সবগুলো কবিতা এবং গানই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসম্ভব জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তার মধ্যে শীর্ষে রয়েছে ‘শুনতে পাও শিশুর কান্না’ কবিতাটি। শুধু কবিতা নয়; বৈশ্বিক মহামারির এই দুঃসময়ে অপূব শর্মা রচনা করেছেন বেশ কয়েকটি গান। তার মধ্যে সিলেট ভূমি গানটি সুর করে গেয়েছেন মুুক্তিযুদ্ধের অন্যতম কণ্ঠসৈনিক, সংগীতশিল্পী হিমাংশু গোস্বামী। সিলেটের রূপ লাবণ্য বর্ণনা করা হয়েছে এই গানে। এছাড়া বাউল শিল্পী রণেশ ঠাকুরের গানের ঘর পোড়ানোর প্রতিবাদে তার লেখা ‘গান পোড়ে না’ কবিতাটিতে ফুটে উঠেছে শিল্পের প্রতি দরদ আর প্রথাবিরোধী প্রতিবাদী ভাষা।