মহেশপুরে বিয়ের দাবীতে ২ সন্তানসহ এক নারীর অবস্থান

14
Jhenaidah-Dro-7-p-2
ঝিনাইদহের প্রতিকী ম্যাপ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহে বিয়ের দাবী নিয়ে এক নারী তার ২ সন্তান নিয়ে প্রতারক প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবীতে অবস্থান করছে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। অবস্থার বেগতিক দেখে প্রতারক প্রেমিক নিজ বাড়ি থেকে চম্পট দিয়েছেন।

জানা গেছে, জেলা শহরের মহেশপুর উপজেলার মালাধরপুর গ্রামে নাতাশা খাতুন নামের এ নারী তার ২ সন্তানসহ প্রতারক প্রেমিক আব্দুর রহমানের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন।

এলাকাবাসী সূত্রমতে, শৈলকুপা উপজেলার পৌরসভার মালী পাড়া এলাকার লিয়াকত আলীর মেয়ে স্বামী পরিত্যাক্তা নাতাশা খাতুন (৩০) ৬ বছর আগে থেকে ঝিনাইদহ শহরে দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন। এ সময় মহেশপুর উপজেলার মালাধরপুর গ্রামের ইব্রাহিম মাষ্টারের ছেলে আব্দুর রহমানের সাথে নাতাশার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

সম্পর্কের এক পর্যায়ে আব্দুর রহমান মিথ্যে কাবিন করে নাতাশার সাথে বিয়ে করেন। সে সময় তার আগের স্বামীর দুই সন্তান কে বিদ্যালয়ে ভর্তি করে দেন আব্দুর রহমান। ভর্তির খাতাপত্রে পিতার নাম হিসেবে তার লেখা হয়। দীর্ঘ ৬ বছর নাতাশার সাথে ঘর সংসার করে আসছে আব্দুর রহমান। তবে নাতাশার সঙ্গে ঘর সংসার করা অবস্থায় প্রতারক প্রেমিক ঝিনাইদহ শহরের আরও এক মেয়ের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলে । সম্পর্কের বিষয়ে নাতাশা জানতে পেরে আব্দুর রহমানের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আব্দুর রহমান নাতাশার সাথে ভুয়া কাবিন করে বিয়ে করেছে বলে জানায়। কাজী অফিসে গিয়ে নাতাশা কোন কাবিননামা পাইনি।

এ ঘটনার পরে সোমবার দুপুরেই দুই সন্তান নিয়ে মহেশপুরের মারাধরপুর গ্রামের ইব্রাহিম মাষ্টারের বাড়ীতে ওঠে। নাতাশার যাওয়া দেখে আব্দুর রহমান বাড়ী থেকে চম্পট দিয়েছে।
আরও দেখুন-খোকসার কিশোরী তান্ত্রিকের তেলেসমাতি

এ বিষয়ে মহেশপুর থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই সঞ্জয় জানান, ঘটনাটি শোনার পর আমি মালাধরপুর গ্রামে গিয়ে ওই মহিলাকে থানায় আসতে বলি । তিনি এসে আব্দুর রহমানসহ তিন জনের নামে একটি অভিযোগ পত্র দাখিল করেছে।

Print Friendly, PDF & Email