ঘোড়াঘাটের ওসিকে সরানো হল

0
16
OC--Dro-11-p-7
ওসি আমিরুল ইসলাম

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনার নয় দিনের মাথায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ঘোড়াঘাট থানার ওসি আমিরুল ইসলামকে সরিয়ে দেওয়া হল।

দিনাজপুর পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন শুক্রবার বলেন, “ওসি আমিরুলকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনসে পাঠানো হয়েছে।”

২ সেপ্টেম্বর রাতে ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পাসের বাসভবনের ভেন্টিলেটর দিয়ে ঢুকে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলীর ওপর হামলা চালানো হয়।

হাতুড়ির আঘাতে গুরুতর আহত ইউএনও ওয়াহিদা এখন ঢাকার জাতীয় নিউরোসায়েন্স ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গভীর রাতে নিজের বাসায় হামলায় আহত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমকে বৃহস্পতিবার বিকেলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকার জাতীয় নিউরোসায়েন্স ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে আনা হয়। ওই ঘটনায় ঘোড়াঘাট থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছেন ওয়াহিদার ভাই শেখ ফরিদ, সেখানে আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে।
তবে এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়ে ৪ সেপ্টেম্বর র‌্যাবের এক সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় ‘চুরি করার জন্য’ তারা ইউএনওর বাসায় ঢুকেছিল বলে জিজ্ঞাসাবাদে দাবি করেছে।

ওই মামলা তদন্তের অগ্রগতি জানতে চাইলে পুলিশ সুপার বলেন, “সময় হলেই সব জানানো হবে।”