কুষ্টিয়ায় ভুয়া ডাক্তারকে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত

0
22

 

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনা সুরক্ষা পোশাক পরিধান করে রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার সময় এক ভুয়া চিকিৎসককে কারাদ- দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। অভিযুক্ত ওই চিকিৎসকের নাম সাগর ইসলাম (১৮)।

জানা গেছে, এই ভুয়া ডাক্তার দীর্ঘদিন ধরে কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যার হাসপাতালে জরুরী বিভাগের মত গুরুত্ব পূর্ন চেয়ার বসে রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। রবিবার দুপুরে বিষয়টি পুলিশের নজরে আসে। তাকে আটক করে। আটক সাগর ইসলাম দৌলতপুর উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের জামিল ইসলামের ছেলে। কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইসাহাক আলী ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৪ ধারা মোতাবেক ভুয়া ওই চিকিৎসককে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইসাহাক আলী জানান, সাগর ইসলাম নামের ভুয়া ওই চিকিৎসক প্রতারণার মাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরে এক হাসপাতালের রোগী অন্য হাসপাতালে ভাগিয়ে নিয়ে যেতেন। রবিবার তিনি জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে রোগী দেখছিলেন। এ সময় হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা প্রেসক্রিপশন লিখে তার পছন্দমত ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পাঠাছিলেন। এসময় হাসপাতালের দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা তাকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি চিকিৎসকের কোনো সনদপত্র দেখাতে পারেন নি। পরে তাকে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।