এমসি কলেজে ধর্ষণ : বিচার বিভাগীয় তদন্ত দলের কাজ শুরু

18
সংগৃহিত ছবি

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

সিলেটে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে আসা গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনা তদন্তে নেমেছ বিচার বিভাগীয় তদন্ত দল।

দলের চার সদস্য বৃহস্পতিবার বিকেলে কলেজ ছাত্রবাসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা ছাত্রাবাসের নবনির্মিত ভবনসহ বিভিন্ন হল পরিদর্শন করে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করেন। এর আগে তারা কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন।

দলের প্রধান সিলেটের জেলা ও দায়রা জজ মো. বজললুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা কাজ শুরু করেছি। এ বিষয়ে পরে আপনাদের সঙ্গে কথা বলব।”
দলের অন্য সদস্যরা হলেন সিলেট মহানগরের মুখ্য হাকিম মো. আবুল কাশেম, অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মমিুনুন নেছা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শারমিন সুলতানা।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিলেটের টিলাগড় এলাকায় এমসি কলেজে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে আসা নববধূকে ক্যাম্পাস থেকে তুলে ছাত্রাবাসে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ সারাদেশে আলোচনার জন্ম দেয়।

পরদিন গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে সিলেটের শাহপরান থানায় ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর রহমানকে প্রধান আসামি করে ছয়জনের নাম উল্লেখসহ নয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এ ঘটনায় কমিটি গঠন করে অনুসন্ধানের নির্দেশ দেয় উচ্চ আদালত। কমিটিকে ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

শাহপরান থানার ওসি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী জানান, এ পর্যন্ত এ মামলার এজাহারভুক্ত ছয় আসামিসহ মোট আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা সবাই রিমান্ডে রয়েছেন।

চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি ছাড়াও এমসি কলেজ কর্তৃপক্ষ, শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

Print Friendly, PDF & Email