দৌলতপুরে কবর থেকে লাশের মাথা ও হাত উধাও

11
kabor-Dulatpur-DROHO-11-P-3

দৌলতপুর প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে কবর থেকে লাশের মাথা ও হাত কেটে নেওয়ার চাঞ্চল্যকর খবর পাওয়া গেছে।

উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন এলাকার মির্জা আলম চেনু বিশ্বাসের কবর খুড়ে কে বা কারা তার লাশের মাথা ও ডান হাত কেটে নিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে এলাকাবাসী প্রয়াত চেনু বিশ্বাসের কবরের উপরের মাটি সরানোর দেখে সন্দেহ বসত পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার ও দৌলতপুর থানার ওসি (তদন্ত) শাহাদত হোসেন ঘটনাস্থলে যায়।

পরে কবরটি মাটি দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাৎক্ষনিকভাবে জানা না গেলেও ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে বলে দৌলতপুর থানার ওসি (তদন্ত) শাহাদত হোসেন জানিয়েছেন। এ ঘটনায় প্রয়াত চেনু বিশ্বাসের ছোট ছেলে জীবন বিশ্বাস থানায় অভিযোগ দিয়েছে।

এদিকে কবর থেকে লাশের মাথা ও হাত কেটে নেওয়ার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা তা দেখার জন্য উপজেলার পার্শ্ববর্তী মানিকদিয়াড় কবরস্থানে ভিড় করে।

অসুস্থতার কারনে গত ৪ ফেব্রুয়ারী সকালে মির্জা আলম চেনু বিশ্বাসের মৃত্যু হয়। পরে তাকে ওই কবরস্থানে দাফন করা হয়। বুধবার রাতের আধাঁরে দৃবৃর্ত্তরা এমন কান্ড ঘটিয়েছে বলে এলাবাসীর ধারণা।

Print Friendly, PDF & Email